ঢাকা - আগস্ট ০৮, ২০২০ : ২৪ শ্রাবণ, ১৪২৭

বন্ধ হচ্ছে রাষ্ট্রায়ত্ত পাটকল

নিউজ ডেস্ক
জুন ২৯, ২০২০ ০৮:৫৩
৬৭ বার পঠিত

রাষ্ট্রায়ত্ত সব পাটকল বন্ধ করে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।বছরের পর বছর লোকসানের কারণে এ সিদ্ধান্ত।এসব পাটকলের স্থায়ী শ্রমিকদের গোল্ডেন হ্যান্ডশেকের মাধ্যমে অবসর দেওয়া হবে।পরবর্তীতে পাটকলগুলো সরকারি-বেসরকারি অংশীদারিত্বের (পিপিপির) আওতায় পরিচালিত হবে। রোববার (২৮ জুন) এক ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী গোলাম দস্তগীর গাজী।

বস্ত্র ও পাটমন্ত্রী জানান, এ বিষয়ে প্রধানমন্ত্রীর সম্মতিও পাওয়া গেছে।রাষ্ট্রায়ত্ত ২৫টি পাটকলে এ মুহূর্তে ২৪ হাজার ৮৮৬ জন স্থায়ী শ্রমিক রয়েছেন।আগামী সেপ্টেম্বরের মধ্যে তাদের পাওনা পরিশোধ করা হবে।তিনি আন্দোলনরত পাটল শ্রমিকদের ঘরে ফিরে যাওয়ারও অনুরোধ করেন।পাট মন্ত্রণালয়ের সচিব জানান, গত ৪৮ বছরে পাট খাতে ১০ হাজার ৬৭৪ কোটি টাকা লোকসান দিতে হয়েছে সরকারকে।

মন্ত্রী জানান, ২০১৪ সাল থেকে অবসরপ্রাপ্ত শ্রমিকদের (৮,৯৫৪ জন) প্রাপ্য সব বকেয়া, বর্তমানে কর্মরত শ্রমিকদের (২৪,৮৮৬ জন) প্রাপ্য বকেয়া মজুরি, শ্রমিকদের পিএফ জমা, গ্র্যাচুইটি এবং সেই সঙ্গে গ্র্যাচুইটির সর্বোচ্চ ২৭ শতাংশ হারে অবসায়ন সুবিধা একসঙ্গে শতভাগ পরিশোধ করা হবে। এজন্য সরকারি বাজেট থেকে প্রায় ৫,০০০ কোটি টাকা দেওয়া হবে। অবসায়নের পর মিলগুলো সরকারি নিয়ন্ত্রণে পিপিপি/যৌথ উদ্যোগ/জিটুজি/ লিজ মডেলে পরিচালনার উদ্যোগ নেওয়া হবে।নতুন মডেলে পুনরায় চালু হওয়া মিলে অবসায়নকৃত বর্তমান শ্রমিকেরা অগ্রাধিকার ভিত্তিতে কাজের সুযোগ পাবেন। একইসঙ্গে এসব মিলে নতুন কর্মসংস্থানেরও সৃষ্টি হবে।

এমআই



মন্তব্য