ঢাকা - ফেব্রুয়ারি ১৭, ২০২০ : ৪ ফাল্গুন, ১৪২৬

দূর হচ্ছে ঢাকায় পাতাল রেল প্রকল্পের বাধা

নিউজ ডেস্ক
জানুয়ারি ০২, ২০২০ ১২:২৯
৬৬ বার পঠিত

রাজধানী ঢাকায় পাতাল রেল প্রকল্প বাস্তবায়নে নতুনভাবে উদ্যোগ নিয়েছে সরকারের সেতু বিভাগ। প্রকল্পটি বাস্তবায়ন হলে সাবওয়েতে ঘণ্টায় ৬০ হাজার যাত্রী চলাচল করতে পারবেন। ফলে কম যাবে যানজট।এ সংক্রান্ত একটা প্রস্তাব ইতোমধ্যেই পাঠানো হয়েছে পরিকল্পনা কমিশনে।প্রকল্পটি বাস্তবায়নে ব্যয় হবে ৩২১ কোটি টাকা।

বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের প্রধান প্রকৌশলী কাজী মো. ফেরদৌস জানান গণমাধ্যমকে জানান, নগরীর যানজট নিরসনে পাতাল রেল নির্মাণ করা হবে। এ জন্য প্রস্তাবটি পরিকল্পনা কমিশনে পাঠানো হয়েছে। জানা গেছে, প্রকল্প সংশ্লিষ্ট সংস্থাগুলোর মধ্যে সমন্বয় না থাকায় এতোদিন অনুমোদন পাচ্ছিল না প্রকল্পটি।সম্প্রতি একটা বৈঠক হয়েছে প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটির। শিগগির অপেক্ষায় আছে ডিপিপি অনুমোদন।পাতাল রেল যেন অন্য প্রকল্পের সঙ্গে যেন সাংঘর্ষিক না হয়, সেদিকে নজর দেয়ার তাগিদ দেয়া হয় প্রকল্প মূল্যায়ন কমিটির সভায়। প্রয়োজনে মতামত নিতে বলা হয় ঢাকা পরিবহন সমন্বয় কর্তৃপক্ষের (ডিটিসিএ)।

আরো জানা যায়, মূল সমীক্ষা প্রকল্প বাস্তবায়নে ব্যয় ধরা হয় ২২৪ কোটি টাকা। মেয়াদ ধরা হয় ২০১৮ সাল থেকে ২০২০ সালের এপ্রিল পর্যন্ত। ২০১৯ সালের ৮ নভেম্বর পরিকল্পনা মন্ত্রীর মাধ্যমে অনুমোদিত হয়। বর্তমানে পরামর্শকের ব্যয় বৃদ্ধি পাওয়ায় প্রকল্পটি সংশোধনের প্রস্তাব করা হয়। সেখানে ব্যয় ধরা হয় ৩২১ কোটি টাকা।

সেতু বিভাগের কর্মকর্তারা গণমাধ্যমকে জানান, টঙ্গী-বিমানবন্দর-কাকলী-মহাখালী-মগবাজার-শাপলা চত্বর-সায়েদাবাদ-নারায়ণগঞ্জের সাইনবোর্ড পর্যন্ত ৩২ কিলোমিটার, আমিনবাজার-গাবতলী-আসাদগেট-টিএসসি-ইত্তেফাক মোড়-সায়েদাবাদ পর্যন্ত ১৬ কিলোমিটার, গাবতলী-মিরপুর ১-মিরপুর ১০-কাকলী-গুলশান ২-নতুন বাজার-রামপুরা টিভি স্টেশন-খিলক্ষেত-শাপলা চত্বর-জগন্নাথ হল-কেরানীগঞ্জ ও রামপুরা টিভি স্টেশন-নিকেতন-তেজগাঁও-সোনারগাঁও-পান্থপথ-ধানমন্ডি ২৭-জিগাতলা-আজিমপুর-লালবাগ-সদরঘাট পর্যন্ত ৪ রুট নির্ধারণ করে সমীক্ষার কাজ চলছে। শেষের ২ রুটের দুরুত্ব এখনো নির্ধারণ করা হয়নি।

সম্পাদনা: এমআই



মন্তব্য