ঢাকা - নভেম্বর ১৩, ২০১৯ : ২৯ কার্তিক, ১৪২৬

অস্ট্রেলিয়ায় দাবানলে পুড়ে নিহত ৩

নিউজ ডেস্ক
নভেম্বর ০৯, ২০১৯ ১৯:৩৬
৫৫ বার পঠিত

নজিরবিহীন দাবানলে পুড়ছে পূর্ব অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস। দাবানলে পুড়ে তিনজন মারা গেছে, চারজন নিখোঁজ রয়েছে এবং কমপক্ষে দেড়শো বাড়িঘর ধ্বংস হয়েছে বলে শনিবার জানিয়েছে দেশটির সরকার।

নিউ সাউথ ওয়েলস রুরাল ফায়ার সার্ভিস (এনএসডব্লিউ আরএফএস) নিশ্চিত করেছে যে সিডনি থেকে ৫৫০ কিলোমিটার (৩৪০ মাইল) উত্তরে গ্লেন ইনসের কাছে আগুনে দু'জন নিহত হয়েছে। একটি গাড়িতে একটি লাশ পাওয়া গেছে এবং শুক্রবার দাবানলে আক্রান্ত হয়ে আগুনে পোড়ে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে।

এনএসডব্লিউ পুলিশ জানিয়েছে যে সিডনির প্রায় ৩০০ কিলোমিটার (১৮৫ মাইল) উত্তরে তারীর উত্তরে একটি পোড়া বাড়ি থেকে একটি লাশ পাওয়া গেছে। বাড়িটি ৬৩ বছর বয়সী এক নারীর; তবে নিহত ব্যক্তির পরিচয় এবং মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত করতে একটি ময়না তদন্ত করা দরকার।

শনিবার সন্ধ্যা থেকে আরো চারজন নিখোঁজ রয়েছেন। প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসন শনিবার বিকেলে বলেছেন, তৃতীয় মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত হওয়ার আগেই তিনি মৃত্যুর সংখ্যা বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করেছিলেন।

সিডনিতে টেলিভিশন সংবাদে মরিসন বলেন, ‘এই আগুনে ইতোমধ্যে দু'জন প্রাণ হারিয়েছে ... এবং যে সমস্ত অঞ্চল ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সেগুলিতে প্রবেশের ফলে আরও খারাপ খবর শুনার আশঙ্কা করছি।’

মরিসন বলেন, অস্ট্রেলিয়ার সশস্ত্র বাহিনীর রিজার্ভ সদস্যরা জরুরি পরিষেবাগুলিতে সহায়তা করতে ব্যবহৃত হতে পারে এবং আগুনে সরাসরি ক্ষতিগ্রস্থদের জন্য সহায়তা প্রদানের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

এদিকে শুক্রবার নিউ সাউথ ওয়েলস জুড়ে ৯০টির বেশি জায়গায় আগুন ছড়িয়ে পড়লে বিভিন্ন স্থানে জারি করা হয় রেকর্ড সংখ্যক জরুরি সতর্কতা। খরাপীড়িত শুস্ক অঞ্চলগুলোতে তীব্র বাতাস আর ৩৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় অপ্রতিরোধ্য হয়ে উঠছে দাবানলের আগুন।

ব্লু মাউন্টেইনস থেকে শুরু করে কুইসল্যান্ড সীমান্ত পর্যন্ত বিস্তীর্ণ এলাকাজুড়ে ১৭ জায়গায় ‘জরুর সতর্কতা’ জারি করেছে নিউ সাউথ ওয়েলস এর রুরাল ফায়ার সার্ভিস। শুক্রবার সেখানে আরো ৫০টির বেশি জায়গা আগুনে পুড়তে দেখা গেছে। সে আগুনও চলে গেছে নিয়ন্ত্রণের বাইরে।

খালি হয়ে গেছে অনেক শহর। আগুন বাড়তে থাকায় শুক্রবার আরো শত শত বাসিন্দাকে এলাকা ছেড়ে চলে যেতে বলা হয়েছে। আগুনের কারণে কয়েক জায়গায় মানুষ ঘরের মধ্যেও আটকে পড়েছে। উদ্ধারকারীরা তাদের কাছে পৌঁছতে পারছে না।

রুরাল ফায়ার সার্ভিস কমিশনার শেন ফিটৎসিমন্স বলেন, “আমরা অনেক জায়গাই চিহ্নিত করতে পারছি না। একইসময়ে অনেক জায়গায় আগুন জরুরি সতর্কতার মাত্রায় পৌঁছে গেছে।”

“নিউ সাউথ ওয়েলস জুড়ে ১৭টি জায়গায় একইসঙ্গে জরুরি সতর্কতার মাত্রায় এভাবে আমরা আর কখনো আগুন জ্বলতে দেখিনি,” বলেন তিনি।

আগুন ছড়িয়ে পড়েছে অস্ট্রেলিয়া উপকূলের প্রায় ১ হাজার কিলোমিটার জুড়ে। দাবানল ছড়িয়ে পড়তে থাকায় কুইন্সল্যান্ড এবং পশ্চিম অস্ট্রেলিয়াতেও জরুরি সতর্কতা জারি করা হয়েছে। ১ হাজারেরও বেশি দমকলকর্মী এবং ৭০টি বিমান আগুন নেভানোর কাজে নিয়োজিত রয়েছে বলে জানিয়েছে দমকল কর্তৃপক্ষ।

সেপ্টেম্বর থেকে কয়েকশ জায়গায় অগ্নিকা- মোকাবিলা করে যাচ্ছে দমকল কর্মীরা। গত মাসে ঘরবাড়ি বাঁচাতে গিয়ে দুইজন মানুষ মারা যাওয়ার ঘটনাও ঘটেছে। গত সপ্তাহে দুই হাজার হেক্টর বনাঞ্চল আগুনে পুড়ে গেছে। সেখানে ছিল একটি কোয়ালা সংরক্ষণাগারও। আগুনে সেখানকার কয়েকশ প্রাণীও মারা গেছে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

রয়টার্স, এবিসি নিউজ ও বিবিসি



মন্তব্য