ঢাকা - নভেম্বর ১৩, ২০১৯ : ২৯ কার্তিক, ১৪২৬

রাজকোটে পারল না বাংলাদেশ

নিউজ ডেস্ক
নভেম্বর ০৮, ২০১৯ ০৯:৫৭
৬৯ বার পঠিত

তিন ম্যাচ টি-২০ সিরিজের ২য় ম্যাচে ভারতের কাছে ৮ উইকেটে হেরেছে বাংলাদেশ। রোহিত শর্মার দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে সফরকারীদের ছুড়ে দেয়া ১৫৪ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে ২ উইকেট হারিয়ে খুব সহজেই জয়ের বন্দরে পৌঁছে যায় স্বাগতিকরা।

টস জিতে বাংলাদেশকে ব্যাটিংয়ে পাঠায় স্বগতিক ইন্ডিয়া। ইতিহাস গড়ার লক্ষ্য নিয়ে ব্যাটিংয়ে নামে সফরকারীরা। ভারতকে ১৫৪ রানের লক্ষ্য দেয় বাংলাদেশ।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্তভাবে শুরু করে ভারতীয় দুই ওপেনার। আগের ম্যাচে ব্যর্থ হওয়া রোহিত শর্মা এ ম্যাচে আলো ছড়ান। তার ব্যাটিং তাণ্ডবে ১০ ওভারেই ১১৩ রান করে স্বাগতিকরা। মাত্র ২৩ বলে অর্ধশতক করেন আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে শততম ম্যাচ খেলা ভারত অধিনায়ক রোহিত শর্মা। ছয়টি চার ও তিনটি ছক্কায় এ অর্ধশতক করেন তিনি।

অর্ধশতকের পরে আরও দুর্দান্তভাবে ব্যাটিং করতে থাকেন রোহিত। সেঞ্চুরির লক্ষ্যেই যেন খেলছিলেন তিনি। শেষ পর্যন্ত ৮৫ রানে তাকে ফেরান আমিনুল। ৪৩ বলে অনবদ্য ইনিংসটি খেলেন তিনি। রোহিতের ইনিংসেই ভঙ্গ হয়ে যায় বাংলাদেশের ইতিহাস গড়ার স্বপ্ন।

এর আগে আমিনুল বিপ্লবের বলে বোল্ড হয়ে প্যাভিলিয়নের পথ ধরেন বাঁহাতি ওপেনার শিখর ধাওয়ান। ২৭ বলে ৩১ রান করেন তিনি। চারটি বাউন্ডারির মারে এ রান করেন তিনি।

শ্রেয়াস আয়ার ও লোকেশ রাহুল হাত ধরে জয়ের বন্দরে পৌঁছায় স্বাগতিকরা। যথাক্রমে ২৪ ও ৮ রানে অপরাজিত থাকেন তারা। শেস পর্যন্ত ২৬ বল হাতে রেখেই ৮ উইকেটের বড় জয়ে সিরিজে সমতা আনে ভারত।

এর আগে রাজকোটে ব্যাট করতে নেমে শুরুটা ভালো করলেও শেষ পর্যন্ত ভালোটা ধরে রাখতে পারেনি টাইগাররা। শেষ পর্যন্ত স্বাগতিকদের বিপক্ষে ৬ উইকেটে ১৫৩ রানের সংগ্রহ পায় মাহমুদউল্লাহর দল।

দলের পক্ষে সর্বোচ্চ ৩৬ রান করেন তরুণ ওপেনার মোহাম্মদ নাঈম। ৩১ বলে পাঁচ বাউন্ডারিতে এ রান করেন তিনি। এ ছাড়া সৌম্যের ৩০, মাহমুদুল্লাহ ৩০, লিটন দাস ২৯, মুশফিক ৪ রান করেন। আফিফ এদিন নিজেকে মেলে ধরতে ব্যর্থ হন। ভারতের পক্ষে যুজবেন্দ্র চাহাল ২৮ রানে ২ উইকেট নিয়ে সফল বোলারের খাতায় নাম লেখান।



মন্তব্য