ঢাকা - নভেম্বর ১৫, ২০১৯ : ১ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬

সৌদি থেকে ফেরত আসছে শ্রমিকরা

নিউজ ডেস্ক
অক্টোবর ২৮, ২০১৯ ০৭:১৫
১৪৯ বার পঠিত

সৌদি আরব থেকে গত দুদিনে ৩৬০ জন শ্রমিক দেশে ফেরত এসেছে। এ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন সৌদি আরবে অবস্থিত বাংলাদেশ দূতাবাস।

বাংলাদেশ দূতাবাস বলছে, বিষয়টি নিয়ে তারা চিন্তিত এবং সৌদি সরকারের সঙ্গে এ নিয়ে তারা আলাপ করবেন।

জানা গেছে, ফেরত আসা শ্রমিকদের অনেকেরই আকামা বা কাজের বৈধ কাগজপত্র রয়েছে। তারপরও তাদের ফেরত পাঠানো হয়েছে।

শুক্রবার সৌদি আরব থেকে ২০০ জন শ্রমিককে দেশে ফেরত পাঠানো হয়েছে। পরদিন শনিবার ফেরত পাঠানো হয়েছে আরও ১৬০ জনকে। এ নিয়ে বাংলাদেশ প্রবাসী কল্যাণ ও বৈদেশিক কর্মসংস্থান মন্ত্রণালয়ের সংস্থা ওয়েজ আর্নার্স কল্যাণ বোর্ডের সহযোগিতায় অক্টোবরেই ৮০৪ জন শ্রমিক দেশে ফেরত আসল।

সৌদি আরবে বাংলাদেশের রাষ্ট্রদূত গোলাম মসিহ জানান, যাদের ফেরত পাঠানো হয়েছে, তারা যেসব কোম্পানিতে কাজ করতেন সেসব প্রতিষ্ঠানের অভিযোগ- এ শ্রমিকরা আকামার আইন ভেঙেছেন, অর্থাৎ এক প্রতিষ্ঠানে কাজের অনুমতিপত্র নিয়ে অন্য প্রতিষ্ঠানে কাজ করেছেন। আবার কেউ নিয়োগকৃত প্রতিষ্ঠান থেকে পালিয়ে অন্যত্র চলে গেছেন।

উল্লেখ্য সৌদি আরবের আইন অনুযায়ী যে কাজ করার ভিসাতে আসবেন ঠিক সেই প্রতিষ্ঠানে কাজ করতে হবে।

ঢাকায় পররাষ্ট্র ও প্রবাসীকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কথা বলে এখন এ সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা হচ্ছে বলে তিনি জানান।

এদিকে ফেরত আসা শ্রমিকদের অভিযোগ, তাদের যে কাজের কথা বলে নেয়া হয়েছিল তার চেয়ে অনেক বেশি কাজ করানো হত। কারো আবার নিয়মিত বেতনও দেয়া হতো না। তা ছাড়া নির্যাতন নিপীড়ন চালানোরও অভিযোগ করেন কেউ কেউ।

সূত্র: বিবিসি



মন্তব্য