ঢাকা - জানুয়ারি ১৮, ২০২০ : ৫ মাঘ, ১৪২৬

সেক্স ভিডিওর মেয়ে আইন তৈরির অনুপ্রেরণা

নিউজ ডেস্ক
অক্টোবর ০৯, ২০১৯ ১৩:০৪
৩২৯ বার পঠিত

অলিম্পিয়ার বয়স যখন ১৮ তখন তার একান্ত মুহুর্তের একটি ভিডিও অনুমতি ছাড়া সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে দেয়া হয়। ঐ ঘটনা তার জীবনকে সম্পূর্ণ পাল্টে দেয়। তার এক বয়ফ্রেন্ড, যার সাথে ছয় বছর ধরে অলিম্পিয়ার সম্পর্ক ছিল, ভিডিও করলেও সেখানে শুধু অলিম্পিয়াকেই দেখা যায়।

ভিডিওটি ধারণ করা হয়েছিল শুধু তাদের দু'জনের জন্যই। অলিম্পিয়ার বয়ফ্রেন্ডও এই ভিডিও সামাজিক মাধ্যমে ছড়ানোর অভিযোগ অস্বীকার করে। ভিডিও ছড়িয়ে পড়ার পর অলিম্পিয়ার নাম হয়ে যায় 'আবেদনময়ী মোটা মেয়েটি।'

সেসময় সে বিষন্নতায় ভুগতে শুরু করে, আট মাস তার বাড়ি থেকে বের হওয়া বন্ধ করে দেয় এবং এরমধ্যে তিনবার আত্মহত্যার চেষ্টা চালায়। তবে ধীরে ধীরে সে বুঝতে শুরু করে যে এই ঘটনায় সে আসলে দোষী নয় - সে ভুক্তভোগী।

এরপর সে অ্যাক্টিভিস্ট হয়ে যায় এবং সাইবার যৌন হয়রানি বিষয়ে মেক্সিকোর প্রধম আইনের প্রস্তাবটির খসড়া লেখেন যেটি সেখানে 'অলিম্পিয়া আইন' নামে পরিচিত। কয়েকবছর আইনটির বিষয়ে প্রচারণা চালানোর পর প্রস্তাবটি গৃহীত হয়

আইনের প্রয়োগের চেয়েও এই বিষয়ে সচেতনতা তৈরি করার বিষয়ে বেশি গুরুত্ব দিচ্ছেন আইনের সমর্থকরা। ২০১১ সালে আইনটি পুয়েবলায় কার্যকর হয় এবং বর্তমানে মেক্সিকোর ৩২টির মধ্যে ১১টি রাজ্যেই এর প্রণয়ন হয়েছে।

বিবিসি



মন্তব্য