ঢাকা - অক্টোবর ১৮, ২০১৯ : ২ কার্তিক, ১৪২৬

বিয়ের নামে দেহ ব্যবসা

নিউজ ডেস্ক
অক্টোবর ০৮, ২০১৯ ২২:২৬
১৭৮ বার পঠিত

ইরাকের ধর্মীয় নেতারা অল্প বয়সী মেয়েদের দেহ-ব্যবসার দিকে ঠেলে দিচ্ছে। শিয়া সম্প্রদায়ের অস্থায়ী বিয়ে প্রথায় মেয়েদের সাময়িক সময়ের জন্য উপভোগ করতে বিয়ে দেয়া হয়।

ইরাকের বেশ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ মাজারের আশেপাশে ধর্মীয় নেতাদের দ্বারা পরিচালিত কাজী অফিসগুলোয় গোপন অনুসন্ধানে দেখা গেছে যে, বেশিরভাগ ধর্মীয় নেতা স্বেচ্ছায় খুব স্বল্প সময়ের জন্য মাঝে মাঝে মাত্র এক ঘণ্টার জন্য উপভোগের জন্য বিয়ে দিয়ে থাকে যেন যৌনমিলনকে বৈধতা দেয়া যায়।

কেউ কেউ নয় বছরের কম বয়সী মেয়েদেরও এই অস্থায়ী বিয়ের জন্য স্বেচ্ছায় সরবরাহ করেছে। তারা এই উপভোগের বিয়ের জন্য কনে হিসাবে নারী, এমনকি এবং অল্প বয়সী মেয়েদের সরবরাহ করার প্রস্তাবও দিয়েছিল। প্রামাণ্যচিত্রে বলা হয়েছে যে ধর্মীয় নেতারা শিশুদের যৌন নির্যাতনকে আশীর্বাদ জানানোর মাধ্যমে দালাল হিসেবে কাজ করছে।

উপভোগের জন্য বিবাহ - নিকাহ মুতআহ - একটি বিতর্কিত ধর্মীয় রীতি যা শিয়া মুসলমানরা অস্থায়ী বিয়ের জন্য ব্যবহার করে। এর বিপরীতে নারীদের অর্থ প্রদান করা হয়। সুন্নি সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশগুলোয় মিসিয়াহ বিয়ে একই ধরণের কাজ সম্পাদন করে। মূলত এই প্রথায় একজন পুরুষকে ভ্রমণের সময় তার স্ত্রীকে সঙ্গে রাখার অনুমতি দেয়া হয়েছে। তবে আজকাল এই প্রথাটি ব্যবহার করা হচ্ছে নারী ও পুরুষকে সীমিত সময়ের জন্য যৌন মিলনের অনুমতি দিতে।

বাগদাদের একজন আলেম সাইয়িদ রাদ বলেছিলেন যে শরিয়া আইনে অস্থায়ী বিবাহের কোনও সময়সীমা বেধে দেয়া হয়নি: একজন পুরুষ তার যত খুশি নারীকে বিয়ে করতে পারবেন। আপনি আধা ঘণ্টার জন্য একটি মেয়েকে বিয়ে করতে পারবেন এবং যত তাড়াতাড়ি তা শেষ হবে, তাৎক্ষণিকভাবে আপনি অন্য আরেকজনকে বিয়ে করতে পারবেন।

বিবিসি



মন্তব্য