ঢাকা - অক্টোবর ১৮, ২০১৯ : ২ কার্তিক, ১৪২৬

ধর্ষিতাকে ৫৯ লাখ টাকা ক্ষতিপূরণ

নিউজ ডেস্ক
অক্টোবর ০১, ২০১৯ ০৮:৩২
১৯২ বার পঠিত

২০০২ সালে ভারতের গুজরাট দাঙ্গার সময় দেশটির সংখ্যালঘু মুসলিম সম্প্রদায়ের সদস্য বিলকিস বানু গণধর্ষণের শিকার হয়েছিলেন। সোমবার দেশটির সুপ্রিম কোর্ট গুজরাট দাঙ্গায় ধর্ষিত এই নারীকে ৫০ লাখ রূপি (বাংলাদেশি ৫৯ লাখ ৭৫ হাজার ৭৫৬ টাকা প্রায়) ক্ষতিপূরণ, সরকারি চাকরি ও বাসস্থানের ব্যবস্থা করার নির্দেশ দিয়ে রায় ঘোষণা করেছেন। একই সঙ্গে আদালতের এই আদেশ বাস্তবায়নে গুজরাট রাজ্য সরকারকে দুই সপ্তাহের সময়সীমা বেঁধে দেয়া হয়েছে।

গুজরাট সরকার সুপ্রিম কোর্টকে জানায়, রাজ্যে ইতোমধ্যে একটি ক্ষতিপূরণ প্রকল্প চলমান রয়েছে। জবাবে সুপ্রিম কোর্টের বিচারক বলেন, কিন্তু গুজরাট সরকার সুপ্রিম কোর্টের আগের আদেশ এখনো বাস্তবায়ন করেনি।

২০০২ সালের ৩ মার্চের দাঙ্গার সময় গুজরাটের আহমেদাবাদের কাছের রাঁধিকপুর গ্রামে একদল উত্তেজিত জনতা বিলকিস বানুর পরিবারের ওপর হামলা চালায়। সেই সময় বিলকিস বানু পাঁচ মাসের অন্তঃসত্ত্বা থাকলেও দাঙ্গাকারীরা তাকে গণধর্ষণ এবং তার পরিবারের কয়েকজন সদস্যকে পিটিয়ে হত্যা করে। দাঙ্গায় বিলকিস বানুর আড়াই বছর বয়সী কন্যাসহ তার পরিবারের ১৪ সদস্য খুন হন। আড়াই বছরের ওই শিশুকে বিলকিস বানুর কোল থেকে কেড়ে নিয়ে হত্যা করা হয়।

সূত্র : এনডিটিভি



মন্তব্য