ঢাকা - আগস্ট ২১, ২০১৯ : ৫ ভাদ্র, ১৪২৬

বাদশার দাম ১০ লাখ

নিউজ ডেস্ক
আগস্ট ০৯, ২০১৯ ০৯:০২
৩৫ বার পঠিত

মৌলভীবাজারের কুলাউড়া উপজেলার পৃথিমপাশা ইউনিয়নের হাসামপুরে লন্ডনপ্রবাসী আব্দুল খালেদ নুর কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে ২২টি ষাড় ও ২০টি ছাগল নিয়ে শুরু করেন খামার। সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক পদ্ধতিতে মোটাতাজা করা এসব ষাড়ের একটির নাম বাদশা। বাদশার ওজন ২৭ মণ দাবি করে খামারের তত্ত্বাবধানে থাকা আতিকুর বলেন, এখন পর্যন্ত এটিই জেলার মধ্যে সর্বোচ্চ ওজনের গরু।

কোরবানির ঈদকে সামনে রেখে আমেরিকান ব্রাহমা জাতের বাদশার মূল্য হাঁকা হচ্ছে ১০ লাখ। খালেদ শখের বসে শুরু করেন প্রাকৃতিকভাবে বিভিন্ন প্রজাতির গরু ও ছাগল মোটাতাজাকরণ। তার খামারের বয়স ১০ মাস। এখানে চার থেকে ছয়জন লোক কাজ করে জীবিকা নির্বাহ করেন।

খামারের দেখাশোনা করা আতিকুর রহমান চৌধুরী তিনি বলেন, ৩০ লাখ টাকার পুঁজি দিয়ে শুরু করলেও এখন তার খামারের সাতটি গরু বিক্রি করলে অর্ধেক টাকা পাওয়া যাবে, তাও খরচ বাদে। বাকিগুলো লাভেই থাকবে।

লন্ডনপ্রবাসী আব্দুল খালেদ নুর বলেন, খামারের সর্বোচ্চ গরুটির নাম বাদশা রেখেছিল ছেলে তামির, যার মূল্য হাঁকা হচ্ছে ১০ লাখ টাকা। ৫ লাখ পর্যন্ত দাম উঠেছে গরুটির। বাদশার খাদ্যের তালিকায় রয়েছে উন্নত জাতের ঘাস, খৈল, ভুট্টা, গম, চালের গুঁড়া ও ভূষি।



মন্তব্য