ঢাকা - ডিসেম্বর ১৪, ২০১৯ : ২৯ অগ্রহায়ণ, ১৪২৬

ফিশিংয়ের মাধ্যমে হ্যাঁক হচ্ছে ফেসবুক!

নিউজ ডেস্ক
জুলাই ১৬, ২০১৯ ২১:২১
১১১ বার পঠিত

বর্তমান সময়ে ফেসবুক হ্যাকিং অনেকের কাছে শখের নেশা হয়ে গেছে। যেমন চলতি বছরে ইয়াহু বা আউটলুক ক্লোন হ্যাকের ফলে বিভিন্ন দেশের একলক্ষ ফেসবুক অ্যাকাউন্ট অন্যের হাতে চলে যায়।

ফিশিং হলো সোশাল ইঞ্জিনিয়ারিং নামক এমনই এক কৌশলের উদাহরণ। এই কৌশলের ফাঁদে পড়লে হারাতে পারেন আপনার অনেক মূল্যবান তথ্য। যেমন ব্যাংক অ্যাকাউন্ট, জরুরী ডকুমেন্টস, এটিএম কার্ডের গোপনীয় তথ্য ইত্যাদি।

সবচেয়ে বড় ফিশিং ওয়েবসাইট বর্তমানে ব্যান করে দেওয়া হয়েছে। বাংলাদেশে এই হানাটা খুব একটা বেশি আকার ধারণ করেনি। তবে বর্তমান সময়ে সবচেয়ে ভয়ংকর হয়ে দাঁড়িয়েছে ফিশিং সাইট ব্যবহার করে ফেসবুক অ্যাকাউন্ট হ্যাক।

ফিশিং সাইট বলতে বোঝায় একটি ওয়েবসাইটের প্রায় হুবহু কপি। তারা প্রকৃত ওয়েবসাইটের যে ওয়েবসাইট লিংক রয়েছে সেটা পুরোপুরি ব্যবহার করতে পারে না (কিছু কিছু ক্ষেত্রে সম্ভব)।

সাধারণত তারা ওয়েবসাইটগুলোর লিংকগুলোকে সামান্য পরিবর্তন করে ব্যবহার করে থাকে। যা সাধারণ দেখায় আমরা এড়িয়ে যাই অথবা খুব একটা নজর দেই না। যেমন www.facebook.com যদি তারা এই লিংকটাকে সামান্য পরিবর্তন করে লিখে ফেলেন www.faceboook.com বা www.facebok.com তাহলে ভালোভাবে নজর না দেয়ার জন্য মানুষ ধোঁকা খেয়ে যাবে।

টার্গেটকৃত ব্যক্তির ইনবক্সে সেন্ড করে তাদের তৈরি করা ওয়েবসাইট লিংক। লিংকে ক্লিক করে ফেসবুক (নাম্বার+ইমেইল) ও পাসওয়ার্ড দিয়ে লগইন করলেই সব তথ্য হ্যাকারদের নিকট চলে যায়। অনেক সময় শুধু ক্লিক করার ফলেও অনেক মূল্যবান তথ্য হ্যাকারদের হাতে চলে যায়।

তারপরই শুরু হয় একজন হ্যাকারের বিভিন্ন ধরনের হুমকি ও ব্ল্যাকমেইলের ম্যাসেজ। তথাপি টাকা চাওয়া ব্যক্তিগত ছবি ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি ইত্যাদি।

ফিশিং সাইট থেকে দূরে থাকার ব্যাপারে ক্রাফের নিম্নোকআত পরামর্শগুলো হ্যাঁকিং থেকে বাঁচতে কার্যকরি হতে পারে:

১. অপরিচিত কাউকে ফ্রেন্ড তালিকায় যোগ করাবেন না।

২. মেসেঞ্জার অথবা ইমেইলে কারো কাছে থেকে পাঠানো কোনো লিংক/পিকচার ফাইল/ সংযোজনকৃত ফাইল ডাউনলোড অথবা ক্লিক করার আগে ভালো করে যাচাই করে নিবেন।

৩. ফেসবুকে দুই স্টেপ অ্যাপ্রোভাল অপশন চালু রাখবেন।

৪. আনঅথোরাইজড লগইন নোটিফিকেশন অন রাখবেন।

৫. অতি উৎসাহিত না হয়ে সোশ্যাল মিডিয়া অথবা বিভিন্ন ওয়েবসাইটে পাওয়া অতি লোভনীয় কোনো বিজ্ঞাপনগুলোতে ক্লিক না করা। ক্লিক করার ব্যাপারে সাবধানতা অবলম্বন করা।



মন্তব্য