ঢাকা - অক্টোবর ১৭, ২০১৯ : ২ কার্তিক, ১৪২৬

যেখানে শিক্ষার্থীরা ২ হাতে লেখে

নিউজ ডেস্ক
জুন ১৬, ২০১৯ ১৩:০৩
১০৮ বার পঠিত

এক হাত দিয়ে লিখতেই অনেকে হাঁপিয়ে ওঠে সেখানে এক স্কুলের সব শিক্ষার্থীই কি না দু’হাত দিয়ে লিখতে পারে! পাশাপাশি পাঁচটি ভাষাতে কথাও বলতে পারে তারা। এমন কোনো বড় স্কুলের ছাত্র নয় তারা। ভারতের মধ্যপ্রদেশের প্রত্যন্ত গ্রামের স্কুল এটি।

মধ্যপ্রদেশের সিংরাউলি জেলার বুধেলা গ্রামের বীণা বন্দিনী স্কুল। প্রায় ১৭১ জন শিক্ষার্থী রয়েছে এই স্কুলে। তারা স্প্যানিশ-সহ পাঁচটি ভাষায় কথা বলতে পারে। পাশাপাশি তারা অনায়াসে দু’হাতে লিখতেও পারে। ১৯৯৯ সালে সাবেক সেনাকর্মী বিপি শর্মা এই স্কুলটি চালু করেন।

তিনি জানান, সেনাবাহিনীতে কাজ করার সময়, তিনি প্রথম দু’হাতে লেখা সম্পর্কে একটি পত্রিকা থেকে জানতে পারেন। তারপরেই এ বিষয়ে তিনি আগ্রহী হয়ে ওঠেন। তিনি বলেন, মাত্র এক শতাংশ লোকের দু’হাতে লেখার ক্ষমতা থাকে। কিন্তু চেষ্টা করলে অনেকেই এইভাবে লেখার ক্ষমতা অর্জন করতে পারে।

মধ্যপ্রদেশের এই স্কুলে পড়–য়াদের মধ্যে বেশির ভাগ দলিত ও আদিবাসী সম্প্রদায়ের। শুধু তাই নয়, এদের মধ্যে অনেকে এমনো রয়েছে যে তাদের পরিবারের মধ্যে তারাই প্রথম স্কুলে যাচ্ছে।

এই স্কুলের ছাত্রদের এই বিরল কীর্তির কাহিনী কেবল ভারতে নয়, ছড়িয়ে পড়েছে গোটা বিশ্বে। তাই মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, জার্মানি, জাপান এমনকি দক্ষিণ কোরিয়া থেকেও বিভিন্ন প্রতিনিধিদল আসছে স্কুলের কর্তৃপক্ষের সাথে কথা বলতে, ছাত্রদের দেখতে।

প্রত্যেক পিরিয়ডের মধ্যে ১৫ মিনিট করে বরাদ্দ থাকে ছাত্রদের দু’হাতে লেখা শেখার জন্য। শেখানো হয় হিন্দি, উর্দু, ইংলিশ, সংস্কৃত, স্প্যানিশ ভাষা। বর্তমানে অষ্টম শ্রেণী পর্যন্ত পড়ানো হয় এই স্কুলে।



মন্তব্য