ঢাকা - ডিসেম্বর ১২, ২০১৮ : ২৭ অগ্রহায়ণ, ১৪২৫

ব্রিটিশ সরকারের বিরুদ্ধে পার্লামেন্ট অবমাননার অভিযোগ

নিউজ ডেস্ক
ডিসেম্বর ০৬, ২০১৮ ২১:১০
৩৭ বার পঠিত

শত শত বছরের পুরনো নিজেদের গণতন্ত্রের ইতিহাসে মতো ‘পার্লামেন্ট অবমাননা’র দায়ে পড়েছে যুক্তরাজ্য সরকার। এর ফলে দেশটির সরকারকে এখন প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মের বহুল সমালোচিত ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে তারা যে আইনি পরামর্শ পেয়েছিল তার সম্পূর্ণ অংশ পার্লামেন্টের সামনে প্রকাশ করতে হবে। এটি প্রকাশে ব্যর্থতার কারণেই থেরেসার সরকারকে ‘পার্লামেন্ট অবমাননা’র দায়ে পড়তে হয়েছে।

ব্রেক্সিট চুক্তি নিয়ে সরকার যে আইনি পরামর্শ পেয়েছিল তা ‘পার্লামেন্টে প্রকাশ করার দাবি সোমবার জানিয়েছিল বিরোধী দল লেবার পার্টিসহ ছয়টি দল। মঙ্গলবার যুক্তরাজ্যের আইনসভার নিকটস্থ হাউজ অব কমন্সে এ বিষয়ে ভোটাভুটি হয়। সেখানে ৩১১-২৯৩ ভোটে দাবির প্রতি সমর্থন জানায় ‘পার্লামেন্ট এবং এর ফলে যুক্তরাজ্য সরকার তাদের দেশের ইতিহাসে প্রথমবারের মতো ‘পার্লামেন্ট অবমাননা’র দায়েও পড়ে।

‘পার্লামেন্টের ওই ভোটের পরিপ্রেক্ষিতে শাসক কনজারভেটিভ পার্টির হাউজ অব কমন্স নেতা আন্দ্রে লিডজম জানান, সরকার এমনিতেই বুধবার ওই আইনি পরামর্শের পুরো অংশ প্রকাশ করার অভিপ্রায়ে ছিল। তিনি ‘পার্লামেন্টকে বলেন, ‘আমরা খুব মনোযোগ সহকারে শুনেছি এবং ‘পার্লামেন্ট যে ইচ্ছা প্রকাশ করেছে তার আলোকে আমরা অ্যাটর্নি জেনারেল কর্তৃক মন্ত্রিসভাকে প্রদত্ত চূড়ান্ত ও সম্পূর্ণ পরামর্শ প্রকাশ করব।’ তিনি আরো বলেন, ‘এই ইস্যু নিয়ে হাউজ অব কমন্সের একটি কমিটি চিহ্নিত করবে যে, কোনো মন্ত্রীরা ‘পার্লামেন্ট অবমাননার জন্য দায়ী এবং তাদের কোনো



মন্তব্য