ঢাকা - আগস্ট ১৫, ২০১৮ : ৩০ শ্রাবণ, ১৪২৫

‘ক্ষমা চেয়েছেন আলোকচিত্রী শহিদুল’

নিউজ ডেস্ক
আগস্ট ০৯, ২০১৮ ১৬:৫৫
৬৬০ বার পঠিত

ফেসবুক লাইভে দেশের বিরুদ্ধে মিথ্যা তথ্য দিয়ে ছাত্র আন্দোলনকে ভিন্নখাতে প্রবাহিত করার চেষ্টা করেছিলেন বলে স্বীকার করেছেন আলোকচিত্রী শহিদুল আলম। ডিবি পুলিশ জানিয়েছে, রিমান্ডে এই স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি দিয়েছেন আলোকচিত্রী শহিদুল। এদিকে, আলোকচিত্রী শহিদুল আলমের শারীরিক অবস্থা সম্পর্কে জানিয়ে হাইকোর্টে রিপোর্ট পাঠিয়েছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল।

ঢাকা মহানগর উত্তর গোয়েন্দা পুলিশের ডিসি মশিউর রহমান বলেন, 'নিরাপদ সড়কের দাবিতে ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবকদের আন্দোলন একটি বৈধ দাবি এবং সবার কাছে কাঙ্ক্ষিত দাবি। কিন্তু এই দাবির পেছনে অন্যরা যদি সড়ক পতনের চেষ্টা করেন, অথবা রাষ্ট্রে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির চেষ্টা করেন, বিভিন্ন ধরনের গুজব ও মিথ্যা তথ্য পরিবেশন করেন তাহলে এগুলো অপরাধ।'

তিনি আরো বলেন, 'আলোকচিত্রী শহীদুল আলম বিভিন্ন সময় কখন, কোথায়, কি হয়েছে, অথবা না হয়েছে, সেরকম পিছনের বিষয়গুলোকে সামনে এনে দেশে-বিদেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টি করেছেন। তিনি এসকল কিছুই অস্বীকার করেনি এবং তিনি এসবের জন্য ক্ষমাও চেয়েছেন।'

নিরাপদ সড়কের দাবিতে শিক্ষার্থীদের করা আন্দোলনের মধ্যে ‘উসকানিমূলক মিথ্যা’ বক্তব্য প্রচারের অভিযোগে তথ্যপ্রযুক্তি আইনের মামলায় রিমান্ডে নেয়া হয় শহিদুল আলমকে। প্রখ্যাত এই আলোকচিত্রীকে আটকের পর নির্যাতন ও রিমান্ডে পাঠানোর বৈধতার বিষয়ে এবং চিকিৎসার জন্য তাকে হাসপাতালে পাঠানোর নির্দেশনা চেয়ে তার স্ত্রী রেহনুমা আহমেদ মঙ্গলবার একটি রিট করেন। এতে স্বরাষ্ট্রসচিব, পুলিশের মহাপরিদর্শক, ডিআইজি (ডিবি) ও রমনা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে বিবাদী করা হয়।



মন্তব্য