ঢাকা - ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৮ : ১০ ফাল্গুন, ১৪২৪

দুগ্ধ খামারিরা পাবেন জামানত ছাড়াই ঋণ

নিউজ ডেস্ক
আগস্ট ২০, ২০১৬ ১৬:২৩


বাংলাদেশকে দুধে স্বয়ংসম্পূর্ণ করার লক্ষ্যে বাংলাদেশ ব্যাংকের বিশেষ একটি পুনঃঅর্থায়ন কর্মসূচির আওতায় দুগ্ধ উৎপাদন ও কৃত্রিম প্রজনন খাতে ২০০ কোটি টাকার তহবিল গঠন করা হয়। এ তহবিল থেকে উদ্যোক্তারা সর্বোচ্চ পাঁচ শতাংশ সুদহারে ঋণ পান। এতোদিন ঋণের বিপরীতে জামানত রাখার নিয়ম ছিল। তবে সাম্প্রতিক এক পরিপত্র জারি করে জামানত ছাড়াই ঋণ প্রাপ্তি নিশ্চিত করার নির্দেশ দিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

গত বছরের ২ জুন দুগ্ধ উৎপাদন ও কৃত্রিম প্রজনন খাতে পুনঃঅর্থায়ন স্কিম পরিচালনার নীতিমালা ঘোষণা করে কেন্দ্রীয় ব্যাংকের কৃষি ঋণ বিভাগ। ওই নীতিমালার ৮(খ) অনুচ্ছেদ সংশোধন করে গতকাল পরিপত্র জারি করা হয়েছে। এতে বলা হয়েছে, উক্ত ঋণের জন্য প্রযোজ্য বাংলাদেশ ব্যাংক কর্তৃক জারিকৃত বর্তমান অনুসৃত অন্যান্য নীতিমালা যেমন- আবেদনপত্র গ্রহণ ও প্রক্রিয়াকরণের সময়কাল, ঋণ গ্রহীতার যোগ্যতা নিরূপণ, পাস বইয়ের ব্যবহার, ঋণ বিতরণ, ঋণের সদ্ব্যবহার, তদারকি ও আদায় প্রক্রিয়া যথারীতি অনুসৃত হবে। তবে ঋণ প্রদানের ক্ষেত্রে কোনোরূপ সহায়ক জামানত গ্রহণ করা যাবে না।

প্রসঙ্গত, প্রতিটি বকনা বাছুর ক্রয়ের জন্য ৪০ হাজার টাকা এবং রক্ষণাবেক্ষণ বা লালন-পালনের জন্য ১০ হাজার টাকা তথা প্রতিটি বকনা বাছুরের জন্য সর্বোচ্চ ৫০ হাজার টাকা ঋণ প্রদান করা যাবে। এক উদ্যোক্তাকে সর্বোচ্চ ৪টি বকনা বাছুর ক্রয়ের দুই লাখ টাকা ঋণ প্রদান করতে পারবে ব্যাংকগুলো।

বাংলাদেশ২৪অনলাইন/এসএম



মন্তব্য