ঢাকা - ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৮ : ১০ ফাল্গুন, ১৪২৪

ব্যক্তিস্বার্থে রাজনীতি করলে দেশকে কিছু দেয়া যায় না‍ঃ প্রধানমন্ত্রী

নিউজ ডেস্ক
জুন ২৪, ২০১৬ ১৫:০৪
ব্যক্তিস্বার্থে রাজনীতি করলে দেশকে কিছু দেয়া যায় না। দলের তৃণমূলের নেতাকর্মীর‍াই সংগঠনের প্রাণভোমরা। আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের প্রতি আমি সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালনের আহবান জানাব- একজন রাজনৈতিক নেতা যদি সততার সাথে কাজ করতে পারে, তবে সেই সততাই হচ্ছে সবচেয়ে বড়ো শক্তি। যে শক্তি দিয়ে যেকোনো দুর্যোগ বা দুর্বিপাক মোকাবেলা করা যায়। বৃহস্পতিবার আওয়ামী লীগের ৬৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উপলক্ষে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে আয়োজিত আলোচনা সভায় সভাপতির ভাষণে প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা এসব কথা বলেন।

আওয়ামী লীগ সভাপতি বলেন, শত ষড়যন্ত্র-নির্যাতনেও আওয়ামী লীগকে নিশ্চিহ্ন করতে না পরার কারণ আওয়ামী লীগের শেকড় অত্যন্ত গভীরে প্রোথিত। আওয়ামী লীগের যে তৃণমূলের নেতাকর্মী, এই নেতাকর্মীরাই সবসময় যেকোন ক্রান্তিকালে সঠিক সিদ্ধান্ত নিয়েছে। ওপরের নেতারা কখনো কখনো ভুল করেছেন। কিন্তু, তৃণমূলের নেতারা কখনও সিদ্ধান্ত গ্রহণে ভুল করেন নাই। যে নির্দেশনা জাতির পিতা দিয়েছেন, সেই নিদের্শনা সঠিকভাবে মেনেই কিন্তু এই সংগঠন এগিয়ে চলেছে।যতবার আঘাত এসেছে যতবার এই দলভাঙ্গার চেষ্টা করা হয়েছে ততবরাই এই দল আরও উজ্জ্বল হয়ে জনগণের সামনে আপন মহিমায় উদ্ভাসিত হয়েছে এবং আরও শক্তিশালী হয়েছে।'

প্রধানমন্ত্রী বলেন, দলটির প্রতি আঘাত একবার আসেনি, বার বার এসেছে। প্রতিষ্ঠাতা সভাপতিই যখন পার্টি ভেঙে চলে যায়, তখন সে পার্টি টিকিয়ে রাখাই কঠিন হয়। সে সময় বঙ্গবন্ধুর মতো ত্যাগী স্বাধীনচেতা এতো বলিষ্ঠ নেতা এই পার্টিতে ছিলেন বলেই এই দল যেমন টিকে গেছে, তেমনি শক্তিশালীও হয়েছে। আজও বঙ্গবন্ধুর সেই আদর্শ ধারণ করে এগিয়ে যাচ্ছি । আঘাত আমাদের ওপর বার বার এসেছে। প্রতিঘাতে সে আঘাত ফেরত দিয়ে আমরা বাঙালির অধিকার প্রতিষ্ঠার আন্দোলনকে এগিয়ে নিয়ে গিয়েছি। ব্যক্তিস্বার্থ নিয়ে যারা রাজনীতি করেন, তারা হয়তো নিজেদের জন্য অনেক কিছু করতে পারেন, কিন্তু দেশকে কখনও কিছু দিতে পারেন না। আমাদের একটাই লক্ষ্য, জনগণের কল্যাণ। আওয়ামী লীগ সেভাবেই কাজ করে যাচ্ছে। সেভাবেই আগামীতে কাজ করে যাবে।'
বাংলাদেশ২৪অনলাইন/এসএম


মন্তব্য