ঢাকা - মে ২২, ২০১৮ : ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫

অস্তিত্ব সংকটে ১৩৮ পোশাক কারখানা

নিউজ ডেস্ক
আগস্ট ০৪, ২০১৫ ২২:৫২
০ বার পঠিত

gasগ্যাসের অভাবে অস্তিত্ব সংকটে পড়েছে দেশের ১৩৮টি পোশাক কারখানা। একই কারণে ব্যাহত হচ্ছে ছোট-বড় ৩৪৪টি গার্মেন্টস ও টেক্সটাইল কারখানার উৎপাদন। এতে প্রায় ১৫০ কোটি ডলারের পোশাক রপ্তানি করতে পারবে না তারা। দুই বছর ধরে এই খাতে গ্যাস সংযোগ বন্ধ রয়েছে।


বিজিএমইএ জানায়, কয়েক বছরে টেক্সটাইল ও গার্মেন্টস শিল্পে ১১১টি নতুন কারখানা তৈরি হয়েছে। এসব কারখানায় গ্যাস সংযোগের জন্য আবেদন করা হয়েছে। কোনোটিতে এখনো সংযোগ দেওয়া হয়নি। ইতোমধ্যে এসব কারখানায় আড়াই হাজার কোটি টাকার বেশি বিনিয়োগ হয়েছে । চাহিদা অনুযায়ী গ্যাসের লোড বাড়ালে ৩ লাখ ৯৭ হাজার লোকের কর্মসংস্থান ও ৮৩৫ মিলিয়ন ডলার রপ্তানি হবে। এসব নতুন কারখানায় বিদ্যুৎ-গ্যাস সংযোগ না দিলে ২০২১ সালের মধ্যে তৈরি পোশাক খাত থেকে ৫০ বিলিয়ন মার্কিন ডলার আয় চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়াবে।


বিটিএমএ জানায়, এ খাতে ২৭টি নতুন কারখানা গ্যাস সংযোগের অভাবে উৎপাদনে যেতে পারছে না। এসব কারখানা চালু হলে ১ লাখ ৪৯ হাজার ৬০০ লোকের কর্মসংস্থান হবে। উদ্যোক্তারা বাংলাদেশ টেক্সটাইল মিলস অ্যাসোসিয়েশনের (বিটিএমএ) মাধ্যমে ৭ হাজার ৮০৬ কোটি টাকার যন্ত্রপাতি আমদানি করেছে। কারখানাগুলো চালু হলে অন্তত ২০-৩০ কোটি ডলার আয় হতো।


বাংলাদেশ২৪অনলাইন/এআর/এমআই



মন্তব্য