ঢাকা - এপ্রিল ২৫, ২০১৮ : ১১ বৈশাখ, ১৪২৫

না পাওয়ার জন্য নয়, একুশে পদক নিয়ে ছোট করলে খারাপ লাগে মন্তব্য ইলিয়াস কাঞ্চনের

নিউজ ডেস্ক
নভেম্বর ০৯, ২০১৫ ১৫:৪০

Kanchan2220141022220945ইলিয়াস কাঞ্চন, বাংলা চলচ্চিত্রে একজন সম্ভাবনাময় অভিনেতা হিসেবে ক্যারিয়ার শুরু করেন। নব্বই দশকে অভিনয় প্রতিভার প্রমাণ রেখে জনপ্রিয় অভিনেতা হিসেবে সবার কাছে গ্রহনযোগ্যতা পান। দেশীয় চলচ্চিত্রের সর্বাধিক ব্যবসা সফল সিনেমা ‘বেদের মেয়ে জোছনা’র নায়ক ইলিয়াস কাঞ্চন এ পর্যন্ত ৩২২টির বেশি সিনেমায় অভিনয় করেছেন। বাংলা সিনেমাকে দু’হাত উজাড় করে দেওয়া এই গুনী অভিনেতা এখনো পাননি একুশে পদকের মতো   রাষ্ট্রীয় কোন স্বীকৃতি। সড়ক দূর্ঘটনায় স্ত্রী’র মৃত্যুর পর সড়ককে নিরাপদ করার লক্ষ্যে ১৯৯৩ সালের ১ ডিসেম্বর তিনি 'নিরাপদ সড়ক চাই' আন্দোলন গড়ে তুলেন।


ইলিয়াস কাঞ্চন বলেন, রাজনীতি না করার কারণে আমাকে অনেকবার অপমান করা হয়েছে। সড়ক দুর্ঘটনা রোধ নিয়ে আন্দোলন করার জন্য আমাকে কখনোই একুশে পদক কিংবা রাষ্ট্রীয় স্বীকৃতি দেয়া হয়নি। পদক পাওয়ার জন্য কখনও কাজ করি নাই। কিন্তু যখন দেখি এসব নিয়ে ছোট করা হয় তখন খুব খারাপ লাগে।


বর্তমান বাংলা সিনেমার অভিনেতা অভিনেত্রীদের নিয়ে তিনি বলেন, নতুন অনেকেই ভালো করছে। বেশ কিছু কাজ আমি দেখেছি। তবে এখনকার বেশির ভাগ তরুণ অভিনেতা-অভিনেত্রীর মধ্যে অস্থিরতা রয়েছে। এইতো কদিন আগে একটি সিনেমায় দেখলাম সংলাপ দিতে গিয়ে বার বার ভুল করছে। এখানে অভিজ্ঞতার ঘাটতি রয়েছে। কাজের প্রতি ভালোবাসার অভাব আছে। শুধু টাকার জন্য সিনেমা করে কিছু অভিনেতা ইন্ডাস্ট্রির বারোটা বাজিয়ে দিচ্ছে। ভালো কাজের সম্মানী এমনিতে বিশাল হয়। এটা তাদের অনেকেই বুঝতে চায় না।


৫৯ বছর বয়সী ইলিয়াস কাঞ্চন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুরের কবিতা অবলম্বনে ‘হঠাৎ দেখা’য় অবিনয় করছেন। সিনেমাটি বাংলাদেশ-ভারতের যৌথ প্রযোজনার নির্মিত হচ্ছে।এই সিনেমার শুটিংয়ে অংশ নিতে তিনি বর্তমানে চট্টগ্রামে অবস্থান করছেন।

বাংলাদেশ২৪অনলাইন/আরআই


মন্তব্য