ঢাকা - মে ২৩, ২০১৮ : ৮ জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৫

সমালোচনার সমালোচনায় সাকিব

নিউজ ডেস্ক
অক্টোবর ০৯, ২০১৫ ০৩:৫১
০ বার পঠিত

শাকিব খানকে বলা হয় এফডিসির প্রানভ্রোমরা। নায়ক মান্নার অকাল মৃত্যুর পর বাংলা চলচ্চিত্রের হাল ধরেন এই নায়ক। নায়কশুন্য ইন্ডাস্ট্রিজকে তিনি একাই টেনে নিয়ে যাচ্ছেন বছরের পর বছর ধরে। একাই রাজত্ব করছেন কিং খান তকমা নিয়ে। এখনো বছরে তার সর্বাধিক সিনেমা মুক্তি পায়। জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার জয়ী এই নায়ক চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সভাপতির মতো গুরু দায়িত্ব পালন করছেন। তবুও তার বিরুদ্ধে আছে নকল সিনেমায় অভিনয়ের অভিযোগ।

নকল সিনেমায় অভিনয় নিয়ে নায়ক শাকিব খান বলেন, বলা হচ্ছে আমি বছরের সবচেয়ে বেশি নকল সিনেমার নায়ক। অভিমান হয় সাংবাদিক ভাইদের প্রতি। কেন তারা এমনটা লিখেন আমার জানা নেই। দেখুন, আমি বছরে সবচেয়ে বেশি সিনেমায় অভিনয় করি। আর এই ইন্ডাজস্ট্রিতে নব্বই ভাগ সিনেমা নকলের দোষে দুষ্ট। স্বাভাবিকভাবেই সর্বাধিক নকল সিনেমার নায়ক হবো আমি। এটা নিয়ে লিখবার কিছু নেই। বরং, কিভাবে মৌলিক গল্পের দিকে আমরা যেতে পারি সেটা ভাবা উচিত।

তিনি আরো বলেন, আমাদের এই ইন্ডাজস্ট্রিতে অনেক মানুষ কাজ করে। যদি আমাদের হাতে ভালো গল্প না থাকে, সেক্ষেত্রে এর বেশি কী আশা করতে পারি। আমি যদি কাজ করবো না বলে বসে থাকি, তবে অনেকগুলো মানুষের কাজ বন্ধ হবে। অনেক পরিচালক ও প্রযোজকরা মন খারাপ করবেন। তাদের সাথে তো আমার সম্পর্কটা আত্মার। আমাকে তারাই তৈরি করেছেন। তাদের অনুরোধ আমি ফেলতে পারি না। সুতরাং এই বিষয়গুলো ভেবেই ক্যামেরার সামনে দাঁড়াতে হয়। তবে আমি সবাইকে বলে দিয়েছি, আগামী বছর থেকে এসব চলবে না। মেধার অভাব নেই এই দেশে। সুযোগ দিলে অনেক গল্পকারই তৈরি হবে ফিল্মে। সেসব মেধাবীদের খুঁজে বের করে মৌলিক গল্পের ছবি দর্শকদের উপহার দিতে হবে। একটি দৃশ্যও নকল হলে আমি আর কাজ করবো না। কারণ, এসব অভিযোগের দায়টা শেষ পর্যন্ত আমার উপরই বর্তায়। আমি কেন বছরের পর বছর এই দায় বয়ে যাবো।

কোরবানির ঈদে শাকিব অভিনীত রাজাবাবু তেলেগু সিনেমা ধাম্মু’র থেকে নকল করা হয়েছে এমন অভিযোগ অস্বীকার করে শাকিব বলেন, কিছু কিছু দৃশ্যের মিল রয়েছে। আর হুবুহু মিল থাকলে কপিরাইট থাকতো।

শাকিব বর্তমানে পরিচালক শফিক হাসানের ধূমকেতু সিনেমার শুটিং নিয়ে ব্যস্ত সময় কাটাচ্ছেন। এই সিনেমায় তার বিপরীতে অভিনয় করছেন পরীমুনি ও তানহা।

বাংলাদেশ২৪অনলাইন/আরআই/এমআই


মন্তব্য