ঢাকা - ফেব্রুয়ারি ২৩, ২০১৮ : ১০ ফাল্গুন, ১৪২৪

`কিংডম অব সৌদি এরাবিয়া’ পদক পেলেন বাংলাদেশের রাশেদ

নিউজ ডেস্ক
নভেম্বর ২৩, ২০১৭ ১৪:০২

জলবায়ু ব্যবস্থাপনা বিষয়ক গবেষণার জন্য শ্রেষ্ঠ গবেষক হিসেবে গাজীপুরের কালীগঞ্জ উপজেলার কৃতি সন্তান এবং সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের কৃষি শক্তি ও যন্ত্র বিভাগের চেয়ারম্যান ড. মুহাম্মদ রাশেদ আল মামুন ‘কিংডম অব সৌদি এরাবিয়া’ আন্তর্জাতিক পদক পেয়েছেন।

সম্প্রতি মরক্কোর রাজধানী রাবাতে ইসলামিক দেশগুলোর অংশগ্রহণে অনুষ্ঠিত ৭ম সম্মেলনে জলবায়ু ব্যবস্থাপনার বিষয়য়ে অবদানের জন্য তাকে এ পদক প্রদান করা হয়। অনুষ্ঠানে বাংলাদেশের পরিবেশ ও বন উপমন্ত্রী আব্দুল্লাহ আল ইসলাম জ্যাকবসহ ৫৬টি দেশের পরিবেশ মন্ত্রীরা উপস্থিত ছিলেন।

ড. রাশেদ জলবায়ু ও পরিবেশ বিপর্যয় রোধের লক্ষ্যে বর্জ্য পদার্থ ব্যবহারের মাধ্যমে নবায়নযোগ্য জ্বালানীর উন্নত ব্যবহার পদ্ধতি আবিষ্কার করেন। যার ফলে বাতাসে কার্বন ডাই অক্সাইড, হাইড্রোজেন সালফাইডসহ অন্যান্য ক্ষতিকর গ্যাসের পরিমাণ হ্রাস পাবে। এর ফলে পরিবেশ বিপর্যয়, আর্থ-সামাজিক উন্নয়ন, সর্বোপরি টেকসই উন্নয়নের জন্য নবায়নযোগ্য জ্বালানীর ব্যবহার বৃদ্ধি করতে সহায়ক হবে।

ড. রাশেদ গত বছর জাপানের কুমামোতু বিশ্ববিদ্যালয়ে অ্যাডভান্স টেকনোলজির উপর পিএইচডি ডিগ্রি লাভ করেন। এছাড়া গবেষণায় সাফল্যের জন্য একই বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রেসিডেন্ট পদকসহ সিলেট কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের শ্রেষ্ঠ প্রকাশনা পুরস্কার লাভ করেন। তিনি গাজীপুরের কালীগঞ্জ পৌর এলাকার ৬নং ওয়ার্ডের ভাদগাতী গ্রামের মুহাম্মদ বাছেদ ও মাহ্ফুজা বেগম দম্পতির সন্তান। তিন ভাই এক বোনের মধ্যে তিনি সবার বড়। তিনি কালীগঞ্জ আর.আর.এন পাইলট সরকারী বিদ্যালয় থেকে এস.এস.সি এবং কালীগঞ্জ শ্রমিক কলেজ থেকে এইচ.এস.সি পাস করেন।



মন্তব্য