ঢাকা - এপ্রিল ২৫, ২০১৮ : ১১ বৈশাখ, ১৪২৫

সেই নিরাপত্তা কর্মীদের ‘অর্ডার অব কারেজ’ উপাধিতে ভূষিত করলো সৌদি

নিউজ ডেস্ক
জানুয়ারি ১২, ২০১৭ ২০:৪৪
সৌদি আরবের ভয়ঙ্কর জঙ্গি তায়ে আল সেয়ারি ও তালাল বিন সামরান আল সায়েদি গত শনিবার উত্তর রিয়াদের আল ইয়াসমিন এলাকায় অভিযান চলাকালে নিহত হয়েছে। এ সময় দুই সন্ত্রাসীর গুলিতে নিরাপত্তা বাহিনীর এক সদস্যও আহত হন।

সম্প্রতি ওই আহত নিরাপত্তা কর্মীকে হাসপাতালে দেখতে গিয়ে ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন নায়েফ, উপ-প্রধানমন্ত্রী ও স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী ওই অভিযানে থাকা ৩জন নিরাপত্তা কর্মীকে দেশটির ‘অর্ডার অব কারেজ’ উপাধি ও তাদের প্রমোশন দেওয়ার নির্দেশ দেন। ক্রাউন প্রিন্স মোহাম্মদ বিন নায়েফ এ সময় ওই তিন নিরাপত্তা কর্মীর ভূয়সী প্রশংসা করেন। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে আহত নিরাপত্তা কর্মীর যথাযথভাবে সুচিকিৎসার নির্দেশ দেন।

এর আগে রিয়াদ গভর্ণর প্রিন্স ফয়সাল বিন বান্দার নিরাপত্তা কর্মীদের প্রশংসা করে বলেন, তোমরা বীরের মতো কাজ করেছে। তোমরা দায়িত্বের প্রতি অনেক আন্তরিক এবং সাহসী। তোমরা আমাদের দেশের গর্ব। বিশ্ব মিডিয়ায় প্রচারিত হয়েছে তোমাদের সেই বীরত্ব।

প্রসঙ্গত, নিহত আল সায়েরি আত্মঘাতী বিস্ফোরক বেল্ট এবং অন্যান্য ডিভাইসের নকশা তৈরি করতেন। তার তৈরি বিস্ফোরকের সাহায্যেই গত বছরের ৪ জুলাই মদীনার মসজিদে নববী (সা.) এবং জেদ্দার ডা. সোলাইমান ফকিহ হাসপাতালের গাড়ি পার্কিংয়ে হামলা চালানো হয়েছিল। এর আগে ২০১৫ সালের ৯ আগস্টও দক্ষিণাঞ্চলীয় আভা শহরে নিরাপত্তা বাহিনীর একটি মসজিদে হামলা চালানো হয়েছিল। দেশটির এক কর্মকর্তা জানান, আল সায়েরি নিউজিল্যান্ডে বৃত্তি নিয়ে প্রকৌশল বিষয়ে পড়াশোনা করতেন। পরে সেখান থেকে সিরিয়ায় গিয়ে ইসলামিক স্টেটের (আইএস) সঙ্গে যোগ দেন। পরে তিনি তুরস্ক, সুদান এবং ইয়েমেন হয়ে সৌদিতে হামলার পরিকল্পনা এবং বিস্ফোরক তৈরির লক্ষ্য নিয়ে ফিরে আসেন।

সূত্র আরব নিউজ


মন্তব্য